সর্বশেষ সংবাদ:
কালিয়াকৈরে কারখানার খাবার খেয়ে অর্ধশতাধিক শ্রমিক অসুস্থ ধোবাউড়ায় ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রস্তুতি সভা আমি চেয়ারম্যান হবো নবাবগঞ্জে প্রেমিককে জিম্মি করে প্রেমিকাকে ধর্ষন। গ্রেফতার ৪ ধোবাউড়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য-কমপ্লেক্সে জাতীয় পতাকার অবমাননা,সচেতন মহলের তীব্র নিন্দা ভারতে বাবরি মসজিদ ভেঙ্গে রাম মন্দির স্থাপনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে ধোবাউড়ায় মানববন্ধন সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় ৫৬ পিস ইয়াবাসহ আটক ১ ধোবাউড়ায় মাস্ক বিতরণ ও বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির মধ্য দিয়ে আদিবাসী দিবস পালিত ধোবাউড়া উপজেলাকে মাদকমুক্ত করতে যুবকদের খেলাধুলায় মনোনিবেশ করাতে হবে–জালাল উদ্দিন সোহাগ ধোবাউড়ায় দলিল লেখক সমিতির নতুন কমিটি

আমি গরীব মানুষ, মাইনসের জমিত বাউয়াইল্লা থাহি….

‘বাজান আমনেরা পারলে আমার লাইগ্গা কিছু করোইন যে, আমি গরীব মানুষ, মাইসের বাড়িত বাউয়াইল্লা থাহি! অসুস্থ বুড়া স্বামীর চিকিৎসার টেহা আর আর দুইল্লা খাওনের লাইগ্গা বাজান ভিক্ষা করি, বাবারে এই বুড়া বয়সো কি ভিক্ষা করনের মনেলো’ বয়সের ভারে লম্বা দীর্ঘদেহী এই নারী বাষ্পরুদ্ধ কন্ঠে এভাবেই মনের কথাগুলো বলছিলেন ৮০ বছর বয়সী জরিনা খাতুন। বয়সের ওজনে ভিক্ষা করার শক্তি নেই। ঠিক মতো হাটা চলাও করতে পারেন না । তারপরও অসুস্থ বৃদ্ধ স্বামীর চিকিৎসার টাকা আর এক মুঠো ভাতের জন্য ছুটে চলতে হয় বাজার থেকে গ্রামে। বয়সের ভারে জরিনা খাতুনের মৃত্যু যখন কড়া নাড়ছে দরজায়, তখন নিত্য যুদ্ধ স্বামীর চিকিৎসার টাকা আর পেটের খোরাক জোগাড় করার।
তবে কোন কোন দিন না খেয়েও দিন পার করেন এই বৃদ্ধ মহিলা। জরিনা খাতুনের বাড়ি ধোবাউড়া উপজেলার বাঘবেড় ইউনিয়নের চাড়িয়াকান্দা গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের চান্দু মিয়ার স্ত্রী। রয়েছে একমাত্র ছেলে জালাল মিয়া। জালাল মিয়াও গ্রামে গ্রামে ঘুরে কটকডি বিক্রি করে তার ৪সন্তানসহ স্ত্রীর জীবিকা নির্বাহ করেন। গর্ভধারিণী বৃদ্ধ মা জরিনা খাতুন যেন আজ বাবাকে নিয়ে বোঝার মতো ভালোবাসায় ঘেরা অভাবের সংসারে। ছেলে সংসার ঠিকমতো না চলার কারণে তিনি এই বৃদ্ধ বয়সে মানুষের দ্বারে দ্বারে ভিক্ষা করে বেড়ান।
জরিনা খাতুন বয়সের কারণে ঠিকমতো আজ কথাও বলতে পারেন না। লম্বা দীর্ঘদেহী এই নারী বাষ্পরুদ্ধ কন্ঠে জানান, উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে একটি বয়স্ক ভাতা কার্ড করে দেওয়া হয়েছে কিন্তু এদিয়ে বৃদ্ধ অসুস্থ স্বামীর চিকিৎসা খরচ’ই চলে না ভিক্ষা না করলে খাবো কোথা থেকে। অন্যের জমিতে ছোট্ট একটি ঘর নির্মান করে মানুষের দ্বারে দ্বারে ভিক্ষা করেই বৃদ্ধ অসুস্থ স্বামীর চিকিৎসা করানোসহ জীবীকা নির্বাহ করে এই অসহায় বৃদ্ধ জরিনা খাতুন।
ছবিঃ- দুইদিন ভিক্ষা শেষে টাকার হিসাব করার সময় ধোবাউড়া থানার সামনে থেকে তোলা।
সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

More News Of This Category