সর্বশেষ সংবাদ:
ধোবাউড়ায় ইয়াবা ব্যবসায়ী ২ জন ও ফেনসিডিল ব্যবসায়ী ১জন কে আটক করে আদালতে প্রেরণ ধোবাউড়ায় বানের পানি কেড়ে নিলো পৃথক গ্রামে দুই শিশুর তাজা প্রাণ ধোবাউড়ায় মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় শিবানন্দখিলা গ্রামে একজন নিহত ধোবাউড়ায় বঙ্গবন্ধু ডিপ্লোমা প্রকৌশলী পরিষদের কমিটি অনুমোদন মসজিদ প্রাঙ্গণে বৃক্ষ রোপন করে পবিত্র ঈদ-উল আযহাকে স্বরণীয় করলেন মাহফুজুল আলম ফাহাদ আমি গরীব মানুষ, মাইনসের জমিত বাউয়াইল্লা থাহি…. সাংসদ জুয়েল আরেং এর প্রচেষ্টায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় ধোবাউড়া উপজেলায় শতভাগ বয়স্ক ও বিধবা ভাতা চালু ধোবাউড়ায় উপজেলা প্রাণীসম্পদ কার্যালয়ের উদ্যোগে বিভিন্ন হাটবাজারে কাজ করছে ভেটেরিনারি মেডিকেল টিম ধোবাউড়ায় “আলোর মিছিল” সমাজ উন্নয়নমূলক সংগঠনের দক্ষিণ মাইজপাড়া ইউপি কমিটি গঠন ধোবাউড়ায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি, সাইকেল বিতরণসহ বিদ্যুৎ ও রাস্তা উদ্বোধন করেন সাংসদ জুয়েল আরেং

ধোবাউড়ায় শশী খাল খননে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ, নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে অনেক পরিবার

ধোবাউড়া(ময়মনসিংহ) থেকে :-
ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে চলমান শশী খাল খননে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে কলসিন্দুর নেতাই নদীর মুখ থেকে কালিকাবাড়ি ব্রীজ পর্যন্ত ৬ কিলোমিটার এবং হুমায়ন মেম্বারের বাড়ি থেকে শানকলা বাজার অতিক্রম করে ভাঙ্গা ব্রীজ পর্যন্ত ৪ কিলোমিটারসহ ১০ কিলোমিটার খাল খননের কাজ চলছে। ৬৪ জেলার অভ্যন্তরস্থ ছোট নদী,খাল এবং জলাশয় পূর্ণখনন প্রকল্পের ১ম পর্যায়ে ধোবাউড়ায় ১০ কিলোমিটার শশী খাল খনন করা হচ্ছে। যার ব্যায় ধরা হয়েছে প্রায় ২ কোটি ২০ লক্ষ টাকা।

মোহাম্মদ ইউনুছ অ্যান্ড ব্রাদার্স প্রাঃ লিঃ নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাজটি করছে। আগামী ২০ মার্চের মধ্যে কাজ শেষ করার কথা রয়েছে।খালটি সরকারী খাস জমি দিয়ে খননের কথা থাকলেও স্থানীয়দের অভিযোগ ব্যাক্তি মালিকানা সাফকাওলা জমি দিয়ে জোরপূর্বক খাল খনন করা হচ্ছে।

কেউ কেউ বলছেন নিজের এক মাত্র থাকার ঘরটিও ভেঙ্গে দিতে হয়েছে চাপে পরে। কেউ প্রতিবাদ করলে স্থানীয় কয়েকজনের সহায়তায় বিভিন্ন নেতার পরিচয় দিয়ে হুমকি দিচ্ছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকজন। ভেকু দিয়ে খাল খনন করায় অতিরিক্ত জায়গা দখল করে মাটি রাখা হচ্ছে। ভেকু নেওয়ার সময় অনেকের ঘরবাড়ি ভাঙ্গার অভিযোগও করছেন স্থানীয়রা। সরকারি নিয়মে পাড়সহ ৬০ ফুট প্রস্থ’ করে শ্রমিক দিয়ে খাল খনন করার কথা থাকলেও সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নিয়ম নীতি তোয়াক্কা না করে ভেকু দিয়ে খাল খননের কাজ করছে।

বল্লভপুর গ্রমবাসী অভিযোগ করে বলেন মসজিদের একটি কবরস্থান কুড়ে ফেলা হয়েছে, অনেক গাছপালাও কেটে ফেলা হয়েছে। স্থানীয় সার্ভেয়ার আনিসুর রহমান বলেন আমি খাস জমি কোথায় কতটুকু আছে তা নির্ণয় করছি, তারা কতটুকু নিবে তা জানিনা, তাছাড়া ভেকু গুরাতে গিয়ে বাহিরে কিছু গাছ নষ্ট হচ্ছে দেখছি। এবিষয়ে ইউপি সদস্য আব্দুল কদ্দুস বলেন খাস জমি দিয়ে খাল খনন করা হচ্ছে, কারো ঘরবাড়ি নষ্ট হয়নি তবে যারা খাসজমি দখল করে রাখছে তারা নিজেরাই দখল মুক্ত করে দিচ্ছে। ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক এই প্রকল্প বাস্থবায় করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন খাস জমি দিয়ে খাল খনন করা হচ্ছে, কারো ঘরবাড়ি নষ্ট হচ্ছেনা সম্পুর্ণ অভিযোগ মিথ্যা। এ ব্যাপারে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তারা জানান এটি মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর প্রকল্প খাস জমি দিয়ে খাল খনন করা হচ্ছে যারা খাসজমি দখল করে রাখছে তারা তা মুক্ত করে দিবে, আর যাদের জমির উপর খালের পার পরছে তাদের এখানে আমরা গাছ লাগিয়ে দিবো এতে তাদেরি লাভ হবে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্ঠা করেও তাদের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের অপশনে ক্লিক করুন

More News Of This Category